Blog

Communal attacks on Hindu homes at Raipura in Narsingdi.

Communal attacks on Hindu homes at Raipura in Narsingdi.
নরসিংদীর রায়পুরায় হিন্দু বাড়িতে সাম্প্রদায়িক হামলা।
Yesterday 13th August at 8:00 pm, on the false excuse of hurt in religious sentiments, fundamentalists vandalized Harilal Bhowmik’s house on the western side of Saherchar market, Saherchar village under the Raipura upazila of the Narsingdi district.

Image/whsc

In the first paragraph about Shri Krishna and second paragraph abour Prophet Muhammad with the critical writing post of Facebook ID, above mentioned address Mohan Lal Bhowmik just given a like and the people of Muslim community in this area went into a rage. Yesterday, the Muslims of this area held repeated meetings at the local mosque and madrasa, and later on, in the Saherchar market, then Radhanagar Union Parishad Chairman A. Sadeq said them to stay calm and after a meeting of Durgapuja, the situation was a bit quiet when the assurance was made to resolve the matter. But (at around 8:00 pm) in the nights a group of extremist Muslims of Bahadurpur and Borchar villages of adjacent North Bakharnagar union council in collaboration with local Mischief, attacked on this Hindu home.

Image/whsc

Although Mohan Lal’s house could not be vandalized as a Building, they attacked his elder brother Harilal Bhowmik’s house and vandalized. Compared to the outside of the house, they have been vandalized in large numbers into the house and robbed valuables things.
After the attack, the Police officers called carpenter on the night from near by village Radhanagar and began to repair the broken house. The carpenters were working till the last news was received. Our photographer (reluctant to reveal the name) said that, the money will be paid by the authorities or the government. Moreover, because of locking the room by the police, he was unable to take pictures inside the house, and he said that Because of this shocking communal attack, There has been intense anger and intense hatred in the area of Hindu society.

Image/whsc

After the attack, Chairman A Sadek and Raipura Police Station visited the spot. At this time, the chairman said that after the Durga Puja the meeting will solve the matter.
On the night after the attack, a group of police of Raipura opolice station led by sub inspector Tarak Nath and chairman A. Sadek visited the spot. At this time, the chairman said that after the Durga Puja will solve the matter call a meeting.
Police and rural police are still in the home.

Image/whsc

নরসিংদীর রায়পুরায় হিন্দু বাড়িতে সাম্প্রদায়িক হামলা।
গতকাল ১৩ই আগস্ট রাত ৮ ঘটিকায়, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার মিথ্যা অজুহাতে নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার সাহেরচর গ্রামের বাজারের পশ্চিম পাশে হরিলাল ভৌমিকের বাড়িতে মৌলবাদীরা হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে।

Image/whsc

প্রথম প্যারায় শ্রীকৃষ্ণ কে নিয়ে ও দ্বিতীংয় প্যারায় নবীজি কে নিয়ে ফেইজবুক আইডির সমালোচনামূলক লেখায়, উপরোল্লিখিত ঠিকানার মোহন লাল ভৌমিক শুধুমাত্র লাইক দিয়েছিলো, আর এতেই ক্ষেপে গিয়েছিলো অত্র এলাকার মুসলমান সম্প্রদায়ের লোকজন। গতকাল অত্র এলাকার মুসুল্লিরা স্থানীয় মসজিদ ও মাদ্রাসায় দফায় দফায় মিটিং করে,পরবর্তিতে বিরাট আকারের মিছিল নিয়ে সাহেরচর বাজারে অবস্থান করলে রাধানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঃ সাদেক তাদেরকে শান্ত থাকতে বলেন এবং দুর্গাপূজার পরে মিটিং করে বিষয়টি সমাধান করে দেওয়ার আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়। কিন্তু রাত ৮ টার দিকে স্থানীয় দুস্কৃতিদের সহযোগিতায় পার্শ্ববর্তী উত্তর বাখরনগর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর ও বড়চর গ্রামের উগ্র মুসুলসানেরা দল বেঁধে ঐ হিন্দু বাড়িতে হামলা চালায়।

Image/whsc

মোহন লালের ঘরটি পাকাঘর হওয়ার কারণে ভাংচুর করতে না পারলেও তার বড় ভাই হরিলাল ভৌমিকের ঘরে হামলা চালিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ করে। ঘরের বাহিরের তুলনায় ঘরের ভিতরে এরা ব্যাপক ভাংচুর করেছে এবং লুট করে নিয়ে যায় মূল্যবান জিনিসপত্র।
হামলার পর থানার পুলিশেরা তড়িঘড়ি করে রাতেই পার্শ্ববর্তী রাধানগর গ্রাম হইতে মিস্ত্রী ডেকে নিয়ে ভাংগা ঘরটি মেরামত করার কাজ শুরু করে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মিস্ত্রীরা কাজ করিতেছিলো। আমাদের ফটোগ্রাফার (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) জানিয়েছেন, মিস্ত্রীদের মুজুরী নাকি সরকার থেকেই পরিশোধ করা হইবে। তাছাড়া, পুলিশ কর্তৃক ঘরটি তালাবদ্ধ করে রাখার কারণে তিনি ঘরের ভিতরের ছবি উঠাতে সক্ষম হননি এবং তিনি বলেছেন এই জঘন্য সাম্প্রদায়িক হামলার কারণে এলাাকার হিন্দু সমাজের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও প্রচন্ড ঘৃণাবোধ সৃষ্টি হয়েছে।
হামলার পর রাতেই চেয়ারম্যান আঃ সাদেক ও রায়পুরা থানার এসআই তারক নাথের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় চেয়ারম্যান বলেছেন দুর্গাপূজার পরে মিটিং করে বিষয়টি সমাধান করে দিবেন।
ঐ বাড়িতে এখনও চৌকিদার ও পুলিশ মোতায়ন রয়েছে।

Report by- Nihar Ranjan Biswas

%d bloggers like this: