Idol vandalism

Durga Pratima vandalized in Muktagacha.

The Durga Pratima of Puja Mandap has been vandalized at Ishwargram in Muktagachha Municipality of Mymensingh District. Miscreants have vandalized some idols in Dawn on Wednesday. According to local sources, the universal Shri Shri Sharodiya Durga Puja has been held initiative of Swargio Pushpa Puja Sanga go Ishwargram for a long time. The Idol (Pratima) artists went home after making Idols (Pratimas) on Tuesday night for 3:30 O’clock. Locals came to find that the Pratima of Ganesh, Kartik, Saraswati, Lakshmi and Asura at the Mandap were still lying in broken condition. (Ittefaq, 2nd October, 2019)

Pratima vandalism: Muslim miscreant detained; attempt to prove him as mental patients.

A Muslim miscreant has been detained red-handed during Durga Pratima (Idol) vandalism in Lalmonirhat district. Now local leaders and some members of the police administration are busy trying to prove him innocence by making him as a mental patient. A Muslim miscreant was detained by local Hindus and handed over to police by mass beatings during Durga Pratima vandalism at around 10.20 pm tonight. The incident took place at Radha Ballabh Temple of Kisamat Borai house of Bhadai union of Aditmari upazila of Lalmonirhat district of Bangladesh. It is to be noted that, after breaking a Durga Pratima (idol) in Mirzapur, Tangail, on September 18th, a Muslim miscreants named Md. Sohel was detained by local Hindus and handed over to the police, then the police and local leader said that name of so-called miscreant Md. Sohel was in complete imbalance, although he was completely well. It is worth mentioning here that, these miscreants recognize the idols and temples of the Hindus but do not recognize the mosques of Muslim.

প্রতিমা ভাঙচুরঃ মুসলমান দুর্বৃত্ত আটক, চলছে মানসিক রোগী সাজানোর পরিকল্পনা।

লালমনিরহাট জেলায় প্রতিমা ভাঙচুরের সময় এক মুসলমান দুর্বৃত্তকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে। এখন স্থানীয় নেতা ও পুলিশ প্রশাসনের কয়েকজন সদস্য তাকে মানসিক রোগী সাজিয়ে নির্দোষ প্রমাণ করতে ব্যস্ত সময় পার করছে। আজ রাত ১০.২০ টায়  প্রতিমা ভাঙচুরের সময় এক মুসলমান  দুর্বৃত্তকে স্থানীয় হিন্দুরা হাতেনাতে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। বাংলাদেশের লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের কিসামত বড়াই বাড়ীর রাধা বল্লভ মন্দিরে এই ঘটনা ঘটে। উল্লেখ্য যে, ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ইং তারিখে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে দুর্গা প্রতিমা ভাঙচুর করার সময় সোহেল নামের একজন মুসলমান দুর্বৃত্তকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশে দেওয়ার পর, পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা স্বজাতির টানে তথাকথিত দুর্বৃত্ত সোহেলকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে সাব্যস্ত করা হয়, যদিও সে সম্পূর্ণ ছিল।   এখানে আরও উল্লেখ থাকে যে, এই সকল দুর্বৃত্তরা হিন্দুদের মূর্তি ও মন্দির চিনে কিন্তু মসজিদ চিনে না।